মাশরাফির বিদায়ী ম্যাচ আজ

বাংলাদেশ ক্রিকেটকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সামনে থেকেই। হালে বাংলাদেশ ক্রিকেট এক বিনে সুতোর মালা। আর এর সবটুকু জুড়েই তিনি। ‘টিম টাইগার্স’-এর রূপকার মাশরাফি মর্তুজা ক্যারিয়ারে শেষবারের মতো আজ খেলতে নামছেন আন্তর্জাতিক টি২০ ম্যাচ। মঙ্গলবার শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচ শুরুর আগে হঠাত্ই টি২০ থেকে অবসরের ঘোষণা দেন মাশরাফি।



সব কিছুর আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ফেইসবুক পেইজে!!
অনুগ্রহ পুর্বক নিচের লাইক বাটনে ক্লিক করুন।

ওই ম্যাচে বাংলাদেশকে ৬ উইকেটে হারিয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে স্বাগতিক শ্রীলংকা। আর তাই সমতায় রেখে সিরিজ শেষ করতে হলে মাশরাফির বিদায়ী ম্যাচে আজ জয়ই একমাত্র বিকল্প টাইগারদের। কলম্বোর রানাসিংহে প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায়। চলতি শ্রীলংকা সফরে ক্রিকেটের বাকি দুই ফরম্যাটে সিরিজ হারেনি বাংলাদেশ। টেস্টের পর ওয়ানডে সিরিজও শেষ হয়েছে ১-১ সমতায়। টেস্ট ম্যাচে পিছিয়ে থেকেও ড্র করেছে টাইগাররা।


আর ওয়ানডে সিরিজে সফরকারীরা ড্র করেছে এগিয়ে থেকে। পুরো সফরেই সব ফরম্যাটে সমতার রেকর্ড ধরে রাখার বড় চ্যালেঞ্জে আজ টাইগাররা। এর সঙ্গে যোগ হচ্ছে, শেষ ম্যাচে বিজয়ীর বেশে মাশরাফির মাঠ ছাড়ার বিষয়টি। প্রিয় নেতাকে বিজয় উপহার দিতে মরিয়া বাংলাদেশ শিবির। দলের তরুণ সদস্য মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত বলেছেন, ‘দ্বিতীয় ম্যাচটিতে আমাদের জয়ের কোনো বিকল্প নেই। কেননা আমরা এ ম্যাচ খেলব শুধু মাশরাফি ভাইয়ের জন্য। আমরা সবাই মাঠে নামব মাশরাফি ভাইকে বিদায়ী উপহার দেয়ার জন্য।’ প্রথম ম্যাচের মতোই আজকের ম্যাচেও ভেনু প্রেমাদাসা স্টেডিয়াম। এ মাঠকে বিবেচনা করা হয় স্বাগতিকদের জন্য দুর্ভাগ্য হিসেবে। তবে প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশকে সহজেই হারিয়ে এ মাঠেও নতুন দিনের সূচনা করেছে লংকানরা। বলা বাহুল্য, বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচের আগে এ মাঠে আগের ১১ টি২০ ম্যাচের ১০টিতেই হারের লজ্জায় ডুবতে হয় স্বাগতিকদের। সব মিলে ১২ ম্যাচের মধ্যে লংকানদের জয় মাত্র দুটিতে।



স্বাগতিকদের পুরনো সেই দুঃসহ স্মৃতি আজ টাইগাররা ফিরিয়ে দিতে পারেন কিনা, সেটাই এখন দেখার ব্যাপার। তবে টি২০তে একটা দুঃস্বপ্নের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ দলও। ক্রিকেটের এ সংক্ষিপ্ততম ভার্সনে সর্বশেষ টানা আট ম্যাচে হেরেছে টাইগাররা। আগের ম্যাচটিতে ১৫৫ রানের পুঁজি রক্ষা করতে পারেনি সফরকারী বোলাররা। ম্যাচ শেষে হারের কারণ হিসেবে স্কোরবোর্ডে আরো কিছু রান আর ক্যাচ মিসকে দায়ী করেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি। তার কথায়, ‘ব্যাটিং উইকেটে আমরা ১৮০ রান করতে পারতাম। আর এটা সম্ভব করতে পারলে ম্যাচ জিততে পারতাম। আর পরের ইনিংসের সময় পেরেরার (কুশল) ক্যাচটি নিতে পারতাম, তাহলেও আমাদের সুযোগ থাকত।’ ব্যক্তিগত ৬৪ রানের মাথায় অভিষিক্ত সাইফউদ্দীনের বলে পেরেরার দেয়া ক্যাচ তালুবন্দি করতে পারেননি তাসকিন আহমেদ। ম্যাচ জিততে তখনো লংকানদের প্রয়োজন ছিল ২৮ বলে ৩৭ রান।



এর পর ৭৭ রান করে আউট হন পেরেরা। কিন্তু ততক্ষণে জয়ের কাছাকাছি স্বাগতিকরা। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, আজকের ম্যাচে স্বাগতিকদের উইনিং কম্বিনেশন ভাঙার সম্ভাবনা খুবই কম। তবে একটি পরিবর্তনের ইঙ্গিত বাংলাদেশ শিবিরে। ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদের জায়গায় দেখা যেতে পারে অফ স্পিনার অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজকে। টেস্ট ও ওয়ানডে খেললেও এখন পর্যন্ত টি২০তে অভিষিক্ত হননি এ তরুণ অলরাউন্ডার।

সব কিছুর আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ফেইসবুক পেইজে ।।

আরও জানতে VIDEO টি দেখুন.চানেলটি SUBSCRIBE করতে ভুলবেননা PLEASE::

loading...