সাক্কুকেও বরখাস্তের শঙ্কা!

উচ্চ আদালতের আদেশে দায়িত্ব নেওয়ার পর সিলেট সিটি কপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল আবারও সাময়িক বরখাস্ত (সাসপেন্ড) হয়েছেন। গতকাল রোববার বেলা ১১টার দিকে আরিফুল হক চৌধুরী দায়িত্ব বুঝে নেন। দুপুর ২টার দিকে তালা ভাঙার পর অফিস কক্ষে ঢোকেন বুলবুল। উৎসব-আনন্দে সিক্ত হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এই দুই বিএনপি নেতা মেয়র পদ থেকে সাময়িক বরখাস্তের আদেশের চিঠি পান। এ ঘটনায় সিলেট ও রাজশাহীতে দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে; সাধারণ মানুষের মধ্যেও বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। অনেকেই এ ঘটনার সমালোচনা করেন।
সব কিছুর আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ফেইসবুক পেইজে!!
অনুগ্রহ পুর্বক নিচের লাইক বাটনে ক্লিক করুন।

তবে এই ঘটনা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও ব্যাপক সমালোচনা হয়েছে। তবে অনেকের স্ট্যাটাসে ওই তিন মেয়রের বরখাস্তের বিষয়টার চেয়েও গুরুত্ব পায় কুমিল্লার নবনির্বাচিত মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর প্রসঙ্গ। তাদের আশঙ্কা এরপর বরখাস্ত হতে পারেন সাক্কুও।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে সাংবাদিক শাহীন রহমান অনেকটা রম্য করে লিখেছেন- ‘সীমাকে হারিয়ে সীমা লংঘন করেছেন সাক্কু কাকা। এবার সাক্কুর বরখাস্তের পালা। ’ড. হারুন রশীদ নামে একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছেন- ‘মানুষের কাছে যান। বরখাস্ত কোনও সমাধান নয়।’

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে কুসিকের নবনির্বাচিত মেয়র মনিরুল হক সাক্কু বলেন, আমিতো আর ওলি না যে আশঙ্কা উড়িয়ে দেব? সরকার চাইলেতো বরখাস্ত করতেই পারে। তাতেতো আর কিছু করার নাই, আমিতো কেবল নির্বাচিত হলাম।’

সাক্কু বলেন, মানুষ আশঙ্কা করছেন অন্য মেয়রদের বরখাস্ত হওয়া দেখে। তারা ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিচ্ছে- তা কি আর আমি আটকাতে পারবো- পাল্টা প্রশ্ন সাক্কুর।

সব কিছুর আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ফেইসবুক পেইজে ।।

আরও জানতে VIDEO টি দেখুন.চানেলটি SUBSCRIBE করতে ভুলবেননা PLEASE::

loading...