নির্বাচনে জিতে তো কোটি টাকা আয় হবে না!

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানের ব্যবহারে মুগ্ধ দুই বাংলার জনপ্রিয় নায়ক ফেরদৌস। তাঁর প্রতি পূর্ণ আস্থা আছে বলে জানালেন। নির্বাচন-পরবর্তী সময়ে আজ রোববার দুপুরে গণমাধ্যমকে এ কথা জানান তিনি।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির এবারের নির্বাচনে ওমর সানী ও অমিত হাসান প্যানেল থেকে নির্বাচন করে কার্যকরী পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন ফেরদৌস। তাঁর প্রাপ্ত ভোট ২৬১। সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানের প্রশংসা করে ফেরদৌস বলেন, ‘আমি দেখেছি জায়েদ সিনিয়রদের খুব সম্মান করে। ওর এই ব্যাপারটা খুবই ভালো। আমরা যদিও দুই প্যানেল থেকে নির্বাচন করেছি। তারপরও যখনই দেখা হয়েছে সব সময় হাসি-আনন্দে ছিলাম। কখনোই মনে হয়নি আমরা দূরের কেউ।’

এই নির্বাচন কোটি টাকা আয় করার কোনো মাধ্যম নয় উল্লেখ করে ফেরদৌস বলেন, ‘গত দুদিন ধরে নির্বাচন ঘিরে কিছু অবান্তর মন্তব্য শুনছি। সবাইকে উদ্দেশ করে বলতে চাই, আরে ভাই, এই নির্বাচনে জয়ী হলে কেউ যে কোটি কোটি টাকা আয় করে ফেলবেন, তেমনটা নয়। এই নির্বাচনটা ঘরোয়া নির্বাচন। ঘরের প্রয়োজনে এই নির্বাচন করা হয়েছে। তিন প্যানেল থেকেই কমিটির সদস্যরা এসেছেন। যাঁরা পরাজিত হলেন, তাঁরা যে শিল্পী রইলেন না, এমনটা না কিন্তু। সবাই একসঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করব। এই সমিতি আমাদের সব শিল্পীর। এখানে সবাই মিলেমিশে থাকব। এটাই সবার একমাত্র লক্ষ্য হওয়া উচিত।’

এবারের শিল্পী সমিতির নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে বলে মন্তব্য করেন ফেরদৌস। তিনি বলেন, ‘উৎসবমুখর পরিবেশে নির্ভেজাল একটা ভোট হয়েছে। কোনো কারচুপি হয়নি। কিন্তু গভীর রাতে সেখানে আমাদের গত আসরের সভাপতি (শাকিব খান) কেন গেছেন, তা বোধগম্য নয়।’

loading...