টাঙ্গাইলে স্কুলকক্ষে ছাত্রীকে ধর্ষণ অতঃপর হত্যা!

টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার মহেলা রাবেয়া সিরাজ উচ্চ বিদ্যালয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে নির্জন কক্ষে সুমী আক্তার (১৫) নামে দশম শ্রেণির


এক ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
সব কিছুর আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ফেইসবুক পেইজে!!
অনুগ্রহ পুর্বক নিচের লাইক বাটনে ক্লিক করুন।

সুমী আক্তার মহেলা গ্রামের মো. রফিক মিয়ার মেয়ে। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

সরেজমিনে স্কুলের প্রতিবেশী ও কয়েক শিক্ষার্থী নাম প্রকাশ না করে জানায়, বৃহস্পতিবার ওই স্কুল কেবিনেট কাউন্সিল নির্বাচন চলছিল। ভোটের কারণে স্কুলের অধিকাংশ কক্ষ খালি ছিল। সুমী স্কুলে গিয়ে ওই নির্বাচনে ভোট দিয়ে ফেরার সময় স্থানীয় বখাটে রণি মিয়া (২৬) ডেকে নিয়ে মুখ বেঁধে মারপিট ও ধর্ষণ করে। মুমূর্ষু অবস্থায় স্থানীয়রা সুমীকে ভ্যানে উঠিয়ে হাসপাতালে পাঠায়। হাসপাতালে নেওয়ার পথে সুমী মারা যান।

কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ খন্দকার মো. আখেরুজ্জামান জানান, ছাত্রীটির লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রণি মিয়া পলাতক রয়েছেন। এ বিষয়ে কালিহাতী থানায় মামলা হয়েছে।

সব কিছুর আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ফেইসবুক পেইজে ।।

আরও জানতে VIDEO টি দেখুন.চানেলটি SUBSCRIBE করতে ভুলবেননা PLEASE::

loading...