রোহিঙ্গা দমনে রাখাইনে বাড়তি সেনা মোতায়েন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : মিয়ানমারের উত্তর–পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যের সুনির্দিষ্ট অঞ্চলে নতুনকরে কারফিউ জারির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেখানকার সেনা–গণতান্ত্রিক ডিফ্যাক্টো সরকার।
মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমকে উদ্ধৃত করে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরাজানিয়েছে, নতুন করে অভিযান চালানোর স্বার্থে সেখানে মোতায়েনকৃত সেনার সংখ্যা বাড়ানোহচ্ছে।
কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সও নতুন করে সেনা মোতায়েনের খবর দিয়েছে।
গতবছর অক্টোবরে ৯ সীমান্ত পুলিশ হত্যাকা–ের প্রতিক্রিয়ায় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এবংসীমান্তরক্ষী পুলিশ একযোগে রোহিঙ্গা দমনে অভিযান শুরু করে। মধ্য এপ্রিল পর্যন্ত চলা সেই সেনাঅভিযানে শতাধিক রোহিঙ্গা নিহত হয়। জানুয়ারিতে রাখাইন রাজ্য পরিদর্শনের পর জাতিসংঘ সেসময় মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে জাতিগতভাবে নির্মূল করারঅভিযোগ আনে।
তবে মিয়ানমার সরকার দাবি করছে, মে ইউ নামের পাহাড়ি এলাকায় রোহিঙ্গা বিদ্রোহীরা সোচ্চাররয়েছে। শনিবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন খবর দিয়েছে, সেখানে নতুন করে অভিযান (ক্লিয়ারেন্সঅপারেশন) চালাবে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। আলজাজিরা বলছে, গত বছর অক্টোবরেরঅভিযানের সময়ও ‘ক্লিয়ারেন্স অপারেশন’ শব্দটি ব্যবহার করেছিল মিয়ানমারের সেনাবাহিনী।

loading...